চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য ২০২৪

বাংলাদেশের রাজধানীতে জনপ্রিয় চিড়িয়াখানা অবস্থিত। প্রত্যেকটা মানুষ ছোট থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত সবাই চিড়িয়াখানায় ভ্রমণ করতে আসে। চিড়িয়াখানায় প্রবেশ করতে হলে অবশ্যই আপনাকে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। কারণ টিকিট ছাড়া আপনি ভিতরে প্রবেশ করে বিভিন্ন জিনিস দেখতে পারবেন না। সবাই চিড়িয়াখানায় যাওয়ার আগে টিকিটের মূল্য সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন।

টিকিট সংগ্রহ এর টাকা দিয়ে তাদের জীবজন্তু এবং বিভিন্ন জিনিসের খাওয়া-দাওয়া করানো হয়। আপনি চিড়িয়াখানার ভিতরে চিত্র বিনোদনের জন্য বিভিন্ন জিনিস দেখতে পারবেন। এখানে মূলত বিশ্বের প্রায় ১৯১টি দেশের বিভিন্ন রকমের জীবজন্তু রয়েছে। প্রতিনিয়ত অনেক মানুষ এখানে বিভিন্ন আজব জীবজন্তু দেখতে অথবা অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পিকনিক করতে চলে আসে। বর্তমান চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য জানতে হলে আমাদের পোস্টটির সম্পূর্ণ পড়তে থাকুন।

চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য

এখানে নিত্যনতুন এবং আদিম যুগের পশুপাখি জীবজন্তু গুলো দেখা যায়। আপনি যদি এখানে প্রবেশ করতে চান তাহলে অবশ্যই টাকা দিয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। দুই বছরের কম বয়সে শিশুদের জন্য চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য একদম ফ্রি। দুই বছরের উপরে থেকে যেকোনো বয়স পর্যন্ত ৫০ টাকা টিকিট মূল্য নির্ধারণ করা আছে।এবং স্টুডেন্টদের জন্য অর্ধেক টিকিটের মূল্য নেওয়া হয় অর্থাৎ আপনি যদি কোন স্কুল কলেজের স্টুডেন্ট আইডি কার্ড দেখাতে পারেন তাহলে ২৫ টাকা দিয়েই চিড়িয়াখানা টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন।

মিরপুর চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য

বাংলাদেশের সর্ব প্রথম ১৯৬০ সালে মিরপুরে চিড়িয়াখানা স্থাপনের উদ্যোগ শুরু হয়েছিল। এরপর ১৯৭৪ সালে ২৩ জুন উন্মুক্তভাবে জনসাধারণের প্রবেশ শুরু হয়ে যায়। এরপর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে চিড়িয়াখানা ভ্রমন করতে আসে। অনেকেই মিরপুর চিড়িয়াখানা ভ্রমণ করার আগে অনলাইনের মাধ্যমে টিকিটের মূল্য জানার চেষ্টা করে। অর্থাৎ আলাদা আলাদা ব্যক্তির জন্য ভিন্ন রকম টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা আছে।

  • ২ বছরের উপরে ব্যক্তিদের জন্য টিকিটের মূল্য ৫০ টাকা।
  • দুই বছরের কম শিশুদের ক্ষেত্রে চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য ফ্রি।
  • এবং স্টুডেন্টদের জন্য টিকিটের মূল্য অর্ধেক অর্থাৎ ২৫ টাকা। ( সে ক্ষেত্রে অবশ্যই স্টুডেন্ট আইডি কার্ড দেখাতে হবে)

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য

বাংলাদেশের চট্টগ্রামে বিভিন্ন বিভাগের মানুষ বসবাস করে। ঢাকা রাজধানীর মতো চট্টগ্রাম বিভাগ অনেক উন্নত। সেখানে প্রাকৃতিক দৃশ্যসহ পাহার অঞ্চল এবং আরো সুন্দর চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা রয়েছে। প্রতিনিয়ত অনেক মানুষ চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় ভ্রমণ করতে যায়। 

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা শহরের দক্ষিণ পশ্চিমে পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত। আপনি এর চিড়িয়াখানায় প্রবেশ করতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। আগের তুলনায় চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা প্রবেশ টিকিটের দাম অনেক বৃদ্ধি হয়েছে। বর্তমান চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা একটি টিকিট সংগ্রহ করতে আপনার খরচ হবে ৭০ টাকা।

চিড়িয়াখানা কবে বন্ধ থাকে

রাজধানীর ঢাকা শহরে মিরপুরে অবস্থিত চিড়িয়াখানা প্রতি সপ্তাহে একদিন বন্ধ থাকে। অনেকেই ভ্রমণ করতে যাওয়ার আগে চিড়িয়াখানা কবে বন্ধ এই তথ্য অনলাইনে খুঁজে থাকে। আপনি বন্ধর দিনে গেলে কোনভাবেই চিড়িয়াখানার ভিতরে প্রবেশ করতে পারবেন না। এজন্যই আপনাকে অবশ্যই সোমবার থেকে শনিবার এর মধ্যে যেতে হবে। অর্থাৎ প্রতি রবিবার মিরপুর চিড়িয়াখানা বন্ধ থাকে।

ঢাকা চিড়িয়াখানা সময়সূচি

ঢাকা আন্তর্জাতিক চিড়িয়াখানা একটি সময়সূচির উপর পরিচালনা করা হয়। প্রতি সোমবার থেকে শনিবার পর্যন্ত নির্দিষ্ট টাইমে আপনাকে ভ্রমণ শেষ করতে হবে। বাংলাদেশের গরমকাল এবং শীতকাল হিসাব করে দুটি সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। অবশ্যই আপনাকে এই সময়ের মধ্যে প্রবেশ করতে হবে এবং সর্বশেষ সময়ের আগে চিড়িয়াখানা থেকে বাহিরে চলে আসতে হবে।

  • গ্রীষ্মকাল সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত।
  • এবং শীতকাল সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত।

শেষ কথা

আপনারা যারা ভ্রমণ প্রিয় মানুষ রয়েছেন। বিভিন্ন ধরনের আদিম যুগের এবং নিত্য নতুন জীবজন্তু এবং পশু পাখি দেখার জন্য চিড়িয়াখানায় যেতে চাচ্ছেন। অনেকেই চিড়িয়াখানা যাওয়ার আগে বর্তমান টিকিট মূল্য অনলাইন এর মাধ্যমে খুঁজে থাকেন। ইতিমধ্যেই আমরা জনপ্রিয় মিরপুর চিড়িয়াখানা এবং চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার প্রবেশ মূল্য উল্লেখ করেছি। আশা করি আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে বর্তমান চিড়িয়াখানা প্রবেশ মূল্য জানতে পেরেছেন। ধন্যবাদ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top